দুনিয়ায় প্রযুক্তির এক বিশাল বিপ্লব, সৌরশক্তিতেই চার্জ হবে এইবার মোবাইল ফোন!

সারাদিন মোবাইল ব্যাবহার করে যদি চার্জ শেষ না হয় তাহলে কতই না আনন্দ হত!তাই না? তবে এইটা তো আর সম্ভব নয়। এজন্যইতো আমাদের রাস্তা-ঘাটে পাওয়ার ব্যাংক নিয়ে ঘুরতে হয়।সেটি যদি না থাকতো তাহলে তো চার্জ শেষ হলেই মোবাইলের সুইচ অফ। চার্জিং পয়েন্টের খোজ চলতে থাকে। চার্জার আবার তখন সাথে না থাকলে আর এক বিপদ।শাওমি এবার এই সমস্যার সমাধান দিতে চলেছে।কান পাতলে এমন কথাই শোনা যাচ্ছে স্মার্টফোনের বাজারে। ভাবতে শুরু করেছেন নিশ্চয়ই এমনটা কি করে সম্ভব?ইংরাজি সংবাদমাধ্যমের একটি খবর অনুযায়ী।চীনা কোম্পানি যেখানে মোবাইল প্রস্তুতকারক করা হয় তারা এমন একটি মোবাইল তৈরির চেষ্টা করতেছে যেটি চার্জ হবে সৌরশক্তির মাধ্যমে।এই প্রথমবার এমন একটি উদ্যোগ নেয়া হলো বিশ্বে।চিনা সংস্থা WIPO বা ওয়ার্ল্ড ইন্টেলেকচুয়াল প্রপারটি অরগানাইজার এর সাথে জুটি বেঁধে এমন ফোন তৈরির কাজ করছে।সোলার চার্জার প্যানেল থাকবে স্মার্টফোনের পিছন দিকে। ফোনটির সামনে থাকবে বেজেল-লেস ডিসপ্লে।সোলার প্যানেল থাকবে দুই তৃতীয়াংশ পেছনের দিকে।তবে ফোনটিকে খুব বেশি চওড়া এই প্যানেলটি থাকা সত্ত্বেও। কথায় আছে কিছু পেতে হলে কিছু দিতে হয়। কারণ ফোনটিতে থাকবে না ফ্রন্ট ক্যামেরা। আরো থাকবে না হেডফোনের পিন ঢোকানোর জ্যাক। কিভাবে এই ফোনে ফ্রন্ট ক্যামেরা রাখা যায় এ নিয়ে পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে দেখা হচ্ছে। প্রশ্ন একটি থেকেই যায় তা হলো কত দ্রত সৌরশক্তির মাধ্যমে ফোনটি চার্জ হবে এই নিয়ে?এ বিষয়ে কিছু জানানো হয়নি এখনও। বাজারে আসলেই এটি স্পষ্ট হবে।Redmi K20 Pro এবং OnePlus 7 Pro বর্তমানে এই মডেল গুলো খুব দ্রুত চার্জ হয়।ওয়ারলেস চার্জারও বিক্রি হচ্ছে বাজারে।এই পরিস্থিতিতে সোলার চার্জারের ফোনের প্রতি দেশের ক্রেতারা কতখানি আকৃষ্ট হন, এটাই এখন দেখার বিষয়।